Thanks Shonali Khonor

ধর্মান্ধতা মুক্ত ও বৈষম্যহীন একটি সমাজের জন্য আমার লড়াই •••••••••• . রুকসানা রহমান ।

নারীবাদী লেখিকা রুকসানা রহমান জন্মেছেন এক বুনিয়াদী সাংস্কৃতিমনা পরিবারে । এই পরিমন্ডলেই তিনি বেড়ে উঠেছেন । কাটিয়েছেন জীবনের একটি বড় অংশ । বাবা খান আরিফুর রহমান ছিলেন বাংলাদেশ চলচ্চিত্র জগতের একজন স্বনামধন্য চিত্রগ্রাহক এবং বিএফডিসি ’ র প্রধান চিত্রগ্রাহক হিসেবে দায়িত্ব পালন হরেন । মা রওশন আরা বেগম ছিলেন মঞ্চ ও সিনেমা জগতের নামকরা অভিনেত্রী । চলচ্চিত্রের কিংবদন্তী খান আতাউর রহমানের ভাতিজি তিনি । পঞ্চাশ দশকের কিংবদন্তী গায়িকা মাহবুবা রহমান তার চাচী । জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী নিলুফার ইয়াসমিনও তাৱ চাচী । তার স্বামী দেশের স্বনামধন্য একটি বেসরকারী প্রতিষ্ঠানে কর্মরত আছেন । পারিবারিক জীবনে তিনি এক কন্যা ও দুই পুত্র সন্তানের জননী । জীবনের শুরু থেকেই বাঙ্গালী সংস্কৃতিকেই আলিঙ্গন করেছেন এই নারীবাদী লেখিকা রুকসানা রহমান । ছােটবেলা থেকেই ঘৃণা করতে শিখেছেন অন্ধকারাচ্ছন্ন কুসংস্কার , ধর্মান্ধতা , ধর্মীয় উন্মাদনা , মৌলবাদ ও সাম্প্রদায়িকতাকে । মনে – প্রাণে লালন করেছেন নারী – পুরুষের সমতা ও নারীর অধিকারকে । তিনি সর্বদাই সােচ্চার থেকেছেন নারী নিগ্রহতা, নারী নির্যাতন , নিষ্পেষনের বিরুদ্ধে । ছােটবেলা থেকেই মুক্তমনা ও স্বাধীনচেতা এই নারীবাদী লেখিকা লিখে চলেছেন ধর্মীয় উন্মাদনা , ধর্মের নামে স্বেচ্ছাচারী পীরতন্ত্র ও কথিত পীরের মাজারে সংঘটিত ভন্ডামি বিরুদ্ধে । লিখছেন ধর্মান্ধতার আধুনিক সংস্করণ জঙ্গীবাদের _ বিরুদ্ধে । তার এই বিষয়ধর্মী লেখাগুলাে মাঝে – মধ্যে বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশিত হয়েছে । লেখাগুলাে প্রকাশিত হওয়ায় বহুবারই তিনি বিভিন্ন ধর্মান্ধগােষ্ঠীর হুমকীর শিকার হয়েছেন । তবুও ছেদ পড়েনি তার লেখনীতে । সম্প্রতি এক আনন্দঘন পরিবেশে দৈনিক সােনালী খবৱকে দেয়া সাক্ষাকারে তিনি যা বলেছেন তার কিয়দাংশ পাঠক সমীপে উপস্থাপিত হলাে ।

সাক্ষাৎকারটি নিয়েছেন দৈনিক সােনালী খৰৱেৱ উপ – সম্পাদক এম রইচ মল্লিক ।

সােনালী খবর : কেমন আছেন ?
রুকসানা রহমান : ভালাে , আপনী ?

সােনালী খবর : ভালাে । আর দশজন বাঙালী নারীর মতাে আটপৌরে জীবনকে উপেক্ষা করে লেখালেখিতে মন দিলেন কেনাে ? |
রুকসানা রহমান : দেখেন , আমি জন্মেছি একটি সাংস্কৃতিক পরিবারে । ওই পরিমন্ডলেই আমি কাটিয়েছি আমার শৈশব – কৈশোর ও যৌবনের একটি অংশ । একটু বুদ্ধি হতেই দেখেছি আমার পরিবারটি বাঙালি সাংস্কৃতি ও কৃষ্টি কীভাবে লালন করছে । আমিও ধীরে ধীরে তাতে অনুপ্রাণিত হয়েছি । নিজস্ব সাংস্কৃতি আগলিয়ে ধরতে শিখেছি । আমাদের সমাজে নারীদের প্রতি পুরুষের অবজ্ঞা , নারীকে স্বীয় অধিকারহরণে সামাজিক প্রবণতা , নারীর প্রতি বৈষম্য , ধর্মের নামে নারীর নিগ্রহতা আমাকে পীড়া দিতাে সেই ছােটবেলা থেকেই । ধীরে ধীরে যখন বড় হতে থাকি সমান্তরালভাবে এই পীড়াটাও বৃদ্ধি পেতে থাকে । ছোটবেলা থেকেই আমার মনের মধ্যে এ সংক্রান্তে একটা জিজ্ঞাসার জন্ম নেয় । ভাবতাম , বড় হয়ে যদি সুযোগ পাই, তাহলে আমি নারী অধিকার নিয়ে কাজ করবাে । ধর্মান্ধতা আর কুসংস্কারের বিরুদ্ধে অবস্থা নেবাে , সংগ্রাম করবাে । সেই চিন্তা – চেতনা থেকেই আমার লেখালেখি । লেখালেখিকেই আমার এই সংগ্রামের রণকৌশল হিসেবে নিয়েছি ।

সােনালী খবর : আপনার লেখার প্রধান বিষয়গুলাে কী ?
রুকসানা রহমান :আমি মূলতঃ নারী – পুরুষের সমতায় বিশ্বাসী । আমি মনে করি , যে কাজটি একজন পুরুষ করতে পারে , সেই কাজটি একজন নারীও করতে সক্ষম । তাহলে কােনাে নারী বৈষম্যের শিকার হবে । আমি আমার লেখনীর মাধ্যমে তা তুলে ধরার চেষ্টা করি । এছাড়াও ধর্মান্ধতার বিরুদ্ধে রয়েছে আমার দৃঢ় অবস্থান । আজ সারা বিশ্বই এক অশান্ত পরিবেশের মধ্যে নিমজ্জিত । এর মূল কারণই ধর্মীয় উম্মাদনা তথা জঙ্গীবাদ । বিশ্বের যেখানেই জঙ্গীবাদের উত্থান হয়েছে , সেখানেই অশান্ত পরিবেশ সৃষ্টি হয়েছে । সভ্যতা কলুষিত হয়েছে , ধ্বংস হয়ে গেছে । বাংলাদেশসহ এই উপমহাদেশের মাজারগুলাের অবস্থা দেখেন । ধর্মের নামে সে সব স্থানে হচ্ছেটা কী ? মাজারগুলোতে বেহেল্লাপনা , গাজাসহ বিভিন্ন মাদক সেবন , সাথে পতিতা ব্যবসা । এগুলাে চলছে ধর্মের নামে । এগুলােই আমার লেখার প্রতিপাদ্য বিষয় ।
সােনালী খবর : জঙ্গীবাদ তাে এখন বিশ্বব্যাপী এক আতঙ্কের বিষয় । জঙ্গীদের বিরুদ্ধে আপনী তো লিখছেন, ওই অপশক্তি থেকে কখনাে কী হুমকীর সম্মুখীন হয়েছেন ?
রুকসানা রহমান : অপশক্তি বিরুদ্ধে এবং অধিকার আদায়ের লড়াইয়ে অংশ নিলে তো হুমকী আসতেই পারে । দেখেন , যেখানেই জঙ্গীদের উথান হয়েছে , সেখানেই সভ্যতার পতন হয়েছে । আফগনিস্তানের দিকে তাকান , দেশটির অবস্থাটা কি ? ধ্বংস হয়ে গেছে । ওসামা বিন লাদেন ও তার সৃষ্ট তালেবানরা দেশটাকে নরকে পরিণত করেছে । ধর্মের নামে সেখানে নারীকে যে অবস্থা করা হয়েছে , তা সভ্য সমাজ মেনে নিতে পারে না । সেখানে নারী মানে ঘরবদ্ধ একটা জীব । একমাত্র যৌনকাজে আর বছর বছর সন্তান জন্ম দেয়া ছাড়া তাদের কোনাে ভূমিকা নেই । এক কথায় , নারী পুরুষের ভােগ্যপণ্য ছাড়া তারা আর কিছুই না । আফ্রিকার দেশগুলাের দিকে তাকান । সেখানে বােকো হারাম নামের ইসলামী জঙ্গীগােষ্ঠী সক্রিয় । দলে দলে নারী অপহরণ করা ছাড়া তাদের যেনাে আর কোনাে কাজ নেই । নারীদেরকে আটকিয়ে রেখে যৌনদাসীতে পরিণত করে ভােগের মাধ্যমেই গােষ্ঠীটি ইসলাম কায়েম করতে ঢাকায় । আমাদের দেশে রয়েছে বেশ কয়েকটি জঙ্গীগােষ্ঠী । তারা একযােগে দেশের ৬৩টি জেলায় বােমা বিস্ফোরণ ঘটিয়েছে । প্রেক্ষাগৃহে বােমাহামলা করেছে । আদালতে বোমাহামলা চালিয়েছে । অন্য ধর্মলম্বিদের উপাশনালয় ভুলিয়েছে , ভাঙ্গচুর করেছে , মানুষ হত্যা করেছে । হলি আর্টিজনে হামলা চালিয়ে দেশি বিদেশী অনেক মানুষকে হত্যা করেছে। বেছে বেছে ব্লগার হত্যায় মেতেছে । ভারতে বােমাহামলা করেছে । ফ্রান্সে হামলা চালিয়েছে । পাকিস্তানেও নামাজরত অবস্থায় মসজিদে বোমাহামলা চালিয়ে শত শত মানুষ হত্যা করেছে । এদের বিরুদ্ধে কলম ধৱলে হুমকী তাে আসবেই । ওই অশুভ গােষ্ঠীগুলাে থেকে আমার অগণিতৰাৱ হুমকী এসেছে ।ওসব হুমকী অগ্রাহ করেই লেখালেখির মাধ্যমেই তাদের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছি । এটাকে আমি মানুষ হিসেবে স্বীয় দায়িত্ব ও কর্তব্য হিসেবেই মনে করি ।

সােলালী খবর : আপনী একজন নারীবাদী লেখিকা । নারী জাগরণ ও নারী মুক্তিই আপনার প্রত্যাশা হওয়া উচিৎ । তাহলে আপনী কেন পুরুষতান্ত্রিক সমাজের বিরুদ্ধে কলম ধরে থাকেন ?
রুকসানা রহমান : আদিকালে যখন মানুষসভ্যতা প্রতিষ্ঠা পায়নি , তখন কিন্তু নারীতান্ত্রীক সমাজব্যবস্থা ছিলাে । নারীদের একাধীক পুরুষ বেষ্টিত থাকতে হতাে । কালের পরিক্রমায় কিছুটা সভ্যতা আসলে বিবাহের বিষয়টি সামনে আসে । তখন কিন্তু নারীর বহু বিবাহের প্রচলন ছিলাে । তখনও নারীই ছিলাে । পরিবারের মুখ্য ব্যক্তি । কারণ প্রাকৃতিক নিয়মে নারীকেই গর্ভধারণ করতে হয় । একাধিক স্বামী থাকার কারণে সন্তানের পরিচয় নিশ্চিত হতাে মায়ের পরিচয়ে । তারপর সভ্যতা প্রতিষ্ঠালাভের সাথে সাথে নারীর অধিকার খর্ব করা হয়েছে এবং পুরুষতান্ত্রিক সমাজের সূত্রপাত ঘটে । এখানেই আমার প্রশ্ন , নারীর অধিকার খর্ব করা কেন , সমতাই বা করা হলাে না কেন ? করা হলাে , একেবারেই অধিকারহারা ! আমি কিন্তু পুরুষ বিদ্বেষী নই , আমি নারী – পুরুষের সমতায়ই বিশ্বাসী । এটা আমার চিন্তা – চেতনা জুড়েই রয়েছে ।

সােনালী খবর : মূলতঃ আপনার লক্ষ্যটা কী ?
রুকসানা রহমান :আমি এমন এক সমাজ ব্যবস্থার জন্য লড়াই করছি , যে সমাজ হবে সম্পূর্ণভাবেই বৈষম্যহীন । নারী – পুরুষ সমমর্যাদার অধিকারী হবে । কখনােই নারী হবে না তার ন্যায্য অধিকার থেকে বাধত । হবে না সমাজের করুণা আর অবহেলার শিকার । শিকার হবে না নির্যাতন , নিষ্পেষণ , নিগ্রহের । সমাজ হবে সম্পূর্ণরূপে কুসংস্কার আর ধর্মান্ধের কালাে থাবা মুক্ত ।

সােনালী খবর : আমাদেরকে সময় দেয়ার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ ।
রুকসানা রহমান : আপনাকেও ধন্যবাদ ।
২৫শে জুন ২০১৮

Share on Social

37 thoughts on “Thanks Shonali Khonor

  1. Hello! This is my first visit to your blog!
    We are a team of volunteers and starting a new initiative in a community in the same niche.
    Your blog provided us beneficial information to work on. You have
    done a wonderful job!

  2. Have you ever thought about creating an e-book or
    guest authoring on other websites? I have a blog based upon on the same subjects you discuss and would really
    like to have you share some stories/information. I
    know my viewers would enjoy your work. If you are even remotely interested, feel
    free to send me an e mail.

  3. Hi! I realize this is kind of off-topic however I needed to ask.

    Does managing a well-established blog like yours require a lot of work?

    I am completely new to operating a blog but I do write in my journal on a daily basis.

    I’d like to start a blog so I can easily share my personal experience and thoughts online.
    Please let me know if you have any suggestions or tips for brand new aspiring blog owners.

    Appreciate it!

  4. When someone writes an article he/she maintains
    the plan of a user in his/her brain that how a user can be
    aware of it. So that’s why this post is outstdanding.
    Thanks!

  5. Thank you a bunch for sharing this with all folks
    you actually recognize what you are talking approximately!

    Bookmarked. Kindly additionally seek advice from my site =).
    We may have a link trade contract among us

  6. I was wondering if you ever thought of changing the layout of your
    site? Its very well written; I love what youve got to say.
    But maybe you could a little more in the way of content so people could connect with it better.
    Youve got an awful lot of text for only having one or
    2 pictures. Maybe you could space it out better?

  7. Howdy! Do you know if they make any plugins to help with Search Engine Optimization?
    I’m trying to get my blog to rank for some targeted keywords but I’m not seeing very good
    success. If you know of any please share. Cheers!

  8. Hmm is anyone else encountering problems with the pictures on this blog loading?
    I’m trying to determine if its a problem on my end or if it’s the blog.
    Any feed-back would be greatly appreciated.

  9. I blog quite often and I seriously thank you for your information. This great article has truly peaked my interest.

    I’m going to take a note of your website and keep checking for new information about once per week.
    I opted in for your RSS feed as well.

  10. Hmm is anyone else experiencing problems with the pictures on this blog loading?
    I’m trying to determine if its a problem on my end or if it’s the blog.

    Any feedback would be greatly appreciated.

  11. That is very interesting, You’re an excessively skilled blogger.
    I’ve joined your feed and look ahead to searching for extra of your excellent post.

    Also, I have shared your web site in my social
    networks

  12. Hello! Quick question that’s totally off topic.
    Do you know how to make your site mobile friendly?
    My weblog looks weird when browsing from my iphone 4.
    I’m trying to find a template or plugin that might be able to
    correct this problem. If you have any recommendations, please share.

    Many thanks!

    my web blog :: Blessed CBD

  13. Oh my goodness! Impressive article dude! Thank you so much, However
    I am encountering troubles with your RSS. I don’t understand why
    I cannot subscribe to it. Is there anybody getting identical RSS problems?
    Anyone that knows the answer can you kindly respond?

    Thanx!!

    Also visit my page CBD products

  14. Hello I am so happy I found your weblog, I really found you by
    mistake, while I was researching on Google for something else,
    Regardless I am here now and would just like to say cheers
    for a tremendous post and a all round entertaining blog (I also love the
    theme/design), I don’t have time to go through it all
    at the moment but I have book-marked it and also added in your RSS
    feeds, so when I have time I will be back to read a lot more,
    Please do keep up the superb work.

    Here is my website CBD oils

  15. I don’t know if it’s just me or if perhaps everybody else encountering issues with your site.
    It looks like some of the text in your content are running off the screen. Can someone else please provide feedback and let me know if this is happening to them as well?
    This could be a issue with my browser because I’ve had this happen before.

    Cheers

    my web site; best CBD oil

  16. Awesome blog! Is your theme custom made or did
    you download it from somewhere? A design like yours with
    a few simple adjustements would really make my blog stand out.
    Please let me know where you got your design. Kudos

    My website CBD oil

Leave a Reply

Your email address will not be published.