“ধর্ষণের আশঙ্কাজনক বিস্তার আলেম সমাজ নীরব !”

আমাদের দেশে ‘ ধর্ষণ ’ নামক এই কালব্যাধিটি মারাত্মকভাবেই সংক্রামিত হয়েছে । বলা যায় , এই কালব্যাধীতে আক্রান্ত আমাদের গােটা সমাজই । ঘরে – বাইরে কোথাও নিরাপদে নেই নারী , নারীটি শিশুই হােক আর বৃদ্ধাই হােক । কিশােরী – তরুণীরা রয়েছে তাে আরাে চরম ঝুঁকিতে ! এখন ধর্ষণ কোন বিচ্ছিন্ন ঘটনা হিসেবে বিবেচিত হচ্ছে না । প্রচলিত অপরাধগুলাের মতােই এর অবস্থান । তবে বিচারের দীর্ঘসূত্রতা আর পারিবারিক শিক্ষা ও নিয়ন্ত্রণে দায়িত্বের অপর্যাপ্ততার কারনে এই জঘন্য বিষয়টির ব্যাপকতা বৃদ্ধি পাচ্ছে । তবে এই অপরাধ সংঘটনের বিষয়ে ইন্টারনেটের ব্যবহারকেও বহুলাংশে দায়ি করা যায় । প্রতিটি মানুষই সৃষ্টিগতভাবে কুপ্রবৃত্তির আওতায় । প্রকৃতিগতভাবে রয়েছে বিপরীত লিঙ্গের প্রতি আকর্ষণ । পৃথিবীর অন্যান্য দেশের মতাে বাংলাদেশেও একটি সামাজিক ব্যাধিতে পরিণত হয়েছে ধর্ষণ । তবে দুঃখজনক হলেও সত্য , পার্শ্ববর্তী দেশ ভারতের মতাে আমাদের দেশেও সংক্রমিত হচ্ছে । মূলত সামাজিক মূল্যবােধ , প্রকৃত শিক্ষার অভাব এবং নিচু মানসিকতার কারণেই এর প্রভাব বৃদ্ধি পাচ্ছে বলে আমার ধারণা । আমাদের দেশে প্রায় প্রতিদিনই ঘটে যাওয়া এসব ঘটনার শিকার হচ্ছে নানান বয়সী নারী । এমনকি ছোট শিশুরাও নিরাপদ নয় । ঘরে ঢুকে বাবা – মা কিংবা স্বামীকে বেঁধে রেখে ধর্ষণ , রাস্তায় ভাইকে বেঁধে রেখে বােনকে ধর্ষণ , বেড়াতে যাওয়া শিশুকে ফুসলিয়ে বা চকলেট দিয়ে ধর্ষণ করার ঘটনা গণমাধ্যমের শিরােনাম হচ্ছে । আমি ধর্ষককে যতই তৃণা করি না কেন , ধর্ষক কিন্তু এই কুকর্ম বন্ধ করবে না , যদি প্রতিটি ধর্ষকের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নিশ্চিত না যায় । এক্ষেত্রে আইনের যথাযথ প্রয়ােগে আরাে যত্নবান হতে হবে । আবার প্রাকৃতিক নিয়মকেও অস্বীকার করা যাবে না । তবে প্রাকৃতিক এই নিয়মটি যথেচ্ছা ব্যবহার অবশ্যই পরিবার থেকেই নিয়ন্ত্রণ করতে হবে । সমাজকেও দায়িত্ব নিতে হবে । প্রাকৃতিক নিয়ম বলে অথবা ধর্ষকদের ঘৃণা করেই ধর্ষণ নিয়ন্ত্রণ করা যায় না । তবে আলেম সমাজকে স্বইচ্ছাপ্রণােদিত হয়েই ধর্ষণের বিষয়ে ধর্মীয় দীক্ষার দায়িত্ব নেয়ার আবশ্যকতা রয়েছে । আমাদের দেশের আলেম সমাজ হিসেবে খ্যাতরা দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে ওয়াজ – মহাফিল করে বেড়ান । কিন্তু এসব আলেমরা এই দীক্ষার দায়িত্বটা নিয়েছেন , এমন প্রমান মিলবে না । বিষয়টিও রহস্যাবৃত্ত । ধর্ষণ থেকে মুক্তি পেতে হলে সর্বপ্রথম ধর্ষণের কারণ চিহ্নিত করা আবশ্যক । অতঃপর এই সংক্রামক ব্যাধিটি থেকে সমাজকে মুক্ত করার উপায় খুঁজতে হবে । ব্যাধিটি স্বমূলে নির্মূল করা সম্ভব না হলেও নিয়ন্ত্রণ করা অসম্ভব নয় । দরকার সামাজিক আন্দোলন গড়ে তােলা । ধর্ষককে সমাজচ্যুত করলে এবং সাথে সাথে কঠিন শাস্তি নিশ্চিত করা সম্ভব হলে অন্যরা এমন অপরাধ করার সাহস হয়তাে পাবে না । ধর্ষণের কিছু কিছু ঘটনার প্রতিবাদ হয় । বিভিন্ন শ্রেণী – পেশার মানুষ ব্যানার – পােস্টার হাতে নিয়ে মিছিল করে , মিটিং করে , মানবন্ধন করে । তবে আলেমসমজাকে এমন আন্দোলনে শরিক হতে দেখা যায় না । এই ধরণের আন্দোলন – সংগ্রামে অংশ নিলে নানা রকম নিপীড়ন , অত্যাচারের শিকার হতে হয় আন্দোলনকারীদের , এমন নজিরও রয়েছে । যার কারণে শুধু ধর্ষণ নয় , বিভিন্ন অপরাধের সংখ্যাও বৃদ্ধি পাচ্ছে । সরকারী – বেসরকারী বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান – সংস্থা থেকে সচেতনতামূলক সভা – সেমিনার করেও ধর্ষণের মতাে ঘটণা কমানাে বা নিয়ন্ত্রণ করা যাচ্ছে না । এমনকি প্রচলিত আইনেও সুফল মিলছে না । আমাদের দেশের প্রতিটি শ্রেণী – পেশার মানুষের হাতে হাতে এখন মােবাইল ফোন । ইন্টারনেট আজ ঘরে ঘরে । সামাজিক যােগাযােগের এই মাধ্যমটা অনেক জনপ্রিয়তা পেয়েছে সর্বমহলে । ইন্টারনেট আর ইউটিউব সম্পর্কে জানেন না এমন লােক এখন আর পাওয়া যায় না । শিক্ষিত – অশিক্ষিত সকলের কাছে এই দুটো বিষয় অনেক জনপ্রিয় । কি পাওয়া যায় না ইউটিউবে আর ইন্টারনেটে । শিক্ষা , বিনােদন , স্বাস্থ্য , চিকিৎসা , নাচ – গান , নাটক , সিনেমা সবই আছে । আছে পর্নোসাইট , উলঙ্গ নাচ , নগ্নসৈকত – নগ্নক্লাবের অশ্লীলচিত্রসহ দেশ – মহাদেশের অতি আশ্চর্যজনক বহুবিষয়াদী । এছাড়াও ইউটিউবে এক বিশাল অংশ জুড়ে রয়েছে অগণিত ধর্মব্যবসায়ীদের ধর্মীয় ওয়াজ ও ওয়াজ মাহফিলের দৃশ্য । তবে অধিকাংশ ওয়াজের বিষয়বস্তু তেমন একটা ধর্মসংক্রান্ত নয় । ধর্মীয় বক্তাদের বক্তব্যের বিশাল অংশ জুড়ে থাকে একে অপরের বিষদগার , অপরের সমালােচনা তথা পরনিন্দা । কিছু কিছু বক্তার বক্তব্য শুধু প্রাগঐতিহাসিক যুগের আবেগীয় কাহিনীকেন্দ্রীক । আর কতিপয় বক্তা আছেন দলীয় রাজনীতি নিয়ে । সমাজের বাস্তব অবস্থার কোনাে কিছুই স্থান পায় না তাদের বক্তব্যে । যে যতাে রসালাে বক্তব্য দিতে পারে সে ততােবড় বক্তা । তাদের প্রচার – প্রসারও বেশী । ফলে তাদের ব্যবসার অবস্থাটা হয় ভালাে । কামানও বেশী । ধর্মীয় আবেগই তাদের কাছে মুখ্য । এরা মূলত ধর্মব্যবসায়ী । ধর্ম তাদের কাছে পণ্যমাত্র । এই পণ্যের পসরা সাজিয়ে ইহজাগতিক ফয়দা হাসিলেই তাদেরকে ব্যস্ত সময় কাটাতে দেখা যায় । ধর্ষণ নামক ভাইরাস সমাজ থেকে দূর করতে আলেম সমাজকে এগিয়ে আসা জরুরী । গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা তারা পালন করতে পারেন । আলেম সমাজ দায়িত্ব নিলে , বিভিন্ন ওয়াজ – মহফিলে ধর্ষণের বিষয়ে ধর্মীয় আলােকে বক্তব্য দিলে , যুবসমাজকে প্রয়ােজনীয় দীক্ষা দিলে সমাজে ধর্ষণের প্রবণতা বহুলাংশেই নিয়ন্ত্রণ হতাে বলে আমার বিশ্বাস । আলেম সমাজ ধর্ষকের বিরুদ্ধে অবস্থান নিলে তাদের পিছনে জড়াে হতাে লাখাে লাখাে সাধারণ জনতা । বহুলাংশেই নিয়ন্ত্রণ হতাে নারীর প্রতি জুলুম , নির্যাতন ও ধর্ষণ । মানুষ যে ধর্মেরই অনুসারিই হােন না কেনাে , শিশুকাল থেকেই প্রত্যেক শিশুকে ধর্মীয় শিক্ষা প্রদান করা কিন্তু অত্যাবশ্যক । কারণ কোনাে ধর্মই অন্যায় বা অপরাধকে সমর্থন করে না । ধর্ষণের মতাে মানসিক প্রবৃত্তি সৃষ্টি যাতে না হয় , বিদ্যালয়গুলােকেও মানবিক শিক্ষাকেন্দ্র হিসেবে গড়ে তােলা এবং শিক্ষাব্যবস্থায় ধর্মীয় শিক্ষার প্রতি গুরুত্বারােপ করা জরুরী । প্রচলিত আইন যেহেতু ধর্ষণ নিয়ন্ত্রণে ব্যর্থতার পরিচয় দিচ্ছে , সেহেতু বর্তমান আইন সংশােধন করে কঠোরতর আইন ও এর বাস্তবায়ন নিশ্চিত করা উচিৎ । বিচারের দীর্ঘসূত্রতাও দূর করা জরুরী । সাথে সাথে সরকারের পক্ষ থেকে গণমাধ্যমগুলােতে স্বতঃস্ফুর্তভাবে ধর্ষণবিরােধী প্রচার – প্রচারণা চালালে , পর্ণো ভিডিওসহ টিভি চ্যানেলগুলােতে নীতিমালা তৈরি করে অশ্লীল ভিডিও প্রচার বন্ধ করলে , গ্রামগুলােতে অশ্লীল যাত্রাপালা বন্ধ করা সম্ভব হলে এবং ইন্টারনেটে পর্ণোসাইট মুক্ত করা সম্ভব হলে ধর্ষণের প্রবণতা বহুলাংশেই হ্রাস পাবে বলে, আমি মনে করি । এছাড়াও নারীদের সামাজিক সুরক্ষা নিশ্চিত করতে সরকারী প্রশাসনযন্ত্রকে আরাে দায়িত্বশীল হতে হবে । পরিবার থেকেই নারীশিশুদের প্রতি শ্রদ্ধাবােধের মানসিকতা তৈরি করতে হবে । সর্বোপরি সমাজের প্রতিটি সদস্যের স্বতঃস্ফূর্তভাবে ধর্ষণমুক্ত সমাজ গঠনে এগিয়ে আসার পাশাপাশি রাষ্ট্রযন্ত্রকে আরাে কঠোর হতে হবে । ধর্ষকের বিরুদ্ধে দ্রুততার সঙ্গে বিচার নিশ্চিত করতে হবে রাষ্ট্রকেই । ভুক্তভােগী ধর্ষিতার প্রতি মানবিক হতে হবে । পরিবার ও সমাজ থেকে ধর্ষককে চূড়ান্তভাবে বয়কট করতে হবে । কেননা বেড়েই চলেছে ধর্ষণের মতাে অমানবিক জঘণ্য ঘটনা । সমাজ – রাষ্ট্র নারীর নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে পারছে না । ধর্ষণের বিরুদ্ধে নারীরাও এককভাবে আন্দোলন গড়ে তুলতে সক্ষম নয় । এটা সত্য যে , নারীরা আত্মরক্ষার পথ খুঁজছে । আমরা এমন একটা নিরাপদ সমাজ কল্পনা করি , যেখানে বাবা – মা মেয়েকে বাইরে পাঠিয়ে নিশ্চিন্তে থাকতে পারবে , নিশ্চিন্তে ঘুমাতে পারবে , কাজ করতে পারবে দুশ্চিন্তাহীনভাবে ।

রুকসানা রহমান

Share on Social

27 thoughts on ““ধর্ষণের আশঙ্কাজনক বিস্তার আলেম সমাজ নীরব !”

  1. My programmer is trying to persuade me to move to .net from
    PHP. I have always disliked the idea because of the expenses.
    But he’s tryiong none the less. I’ve been using Movable-type on numerous websites
    for about a year and am worried about switching to another platform.
    I have heard excellent things about blogengine.net.
    Is there a way I can transfer all my wordpress content into it?
    Any help would be really appreciated!

  2. This is really interesting, You are a very skilled blogger.
    I have joined your feed and look forward to seeking more of your wonderful post.
    Also, I’ve shared your web site in my social networks!

  3. I’ve been browsing online more than 4 hours today, yet I never found any interesting article like yours.
    It’s pretty worth enough for me. Personally, if all site owners and bloggers made good content as you did, the internet will be much more useful than ever
    before.

  4. Hi there just wanted to give you a brief heads up and let you know a few of the pictures aren’t
    loading correctly. I’m not sure why but I think its a linking issue.
    I’ve tried it in two different web browsers and both show
    the same results.

  5. Its such as you read my mind! You seem to grasp a lot approximately this, like you wrote the book
    in it or something. I feel that you can do with some p.c.
    to pressure the message home a little bit, however instead of that, that
    is fantastic blog. A fantastic read. I’ll definitely be back.

  6. Good day! This post could not be written any better!
    Reading this post reminds me of my good old room mate!
    He always kept chatting about this. I will forward this page to him.
    Pretty sure he will have a good read. Thank you for sharing!

  7. Hi there very cool site!! Guy .. Excellent .. Wonderful ..
    I’ll bookmark your web site and take the feeds additionally?

    I’m satisfied to search out numerous helpful info right here
    within the publish, we need work out extra strategies in this
    regard, thanks for sharing. . . . . .

    My blog CBD oil for pain

  8. Aw, this was an extremely nice post. Taking a few minutes
    and actual effort to generate a very good article… but what can I say… I hesitate a lot and don’t seem to get anything done.

    My blog :: Blessed CBD

  9. What i do not realize is in fact how you are now not actually a lot more neatly-preferred than you might be now.
    You’re so intelligent. You recognize therefore considerably relating
    to this topic, made me for my part consider
    it from a lot of various angles. Its like women and men are not interested unless it’s something to
    do with Lady gaga! Your own stuffs excellent. Always deal with it up!

    Take a look at my blog: best CBD oil UK

  10. I truly love your website.. Great colors & theme. Did you build
    this amazing site yourself? Please reply back as I’m looking to
    create my own website and would like to learn where
    you got this from or just what the theme is named.
    Appreciate it!

    my site – buy CBD oil

  11. Excellent beat ! I wish to apprentice while you amend your site, how can i
    subscribe for a blog website? The account aided me a acceptable deal.
    I had been a little bit acquainted of this your broadcast offered bright clear concept

    Feel free to visit my site … my website

  12. Hmm it looks like your blog ate my first comment (it was extremely
    long) so I guess I’ll just sum it up what I submitted and say, I’m thoroughly enjoying
    your blog. I as well am an aspiring blog writer but I’m still new to the whole thing.
    Do you have any helpful hints for beginner blog writers?
    I’d certainly appreciate it.

    Also visit my webpage … click resources

Leave a Reply

Your email address will not be published.